Breaking News
Home / ভিন্ন খবর / রাজশাহীর গাছপাকা আম ১৮ টাকা কেজি!

রাজশাহীর গাছপাকা আম ১৮ টাকা কেজি!

গাছপাকা আম ১৮ টাকা কেজিঃ রাজশাহীর বাঘায় গাছ পাকা লকনা আম ১৮-২০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। উপজেলার বিভিন্ন গ্রামে থেকে কিনে নিয়ে যাচ্ছে ছোট ছোট ফড়িয়া ব্যবসায়ীরা। রোববার চকবাউসা গ্রামের নজরুল ইসলাম নামের এক ফড়িয়া ব্যবসায়ী আড়ানী গোচর গ্রামের বাড়ি বাড়ি ঘুরে ২০ কেজিতে আম কিনতে দেখা গেছে।

সূত্রে জানা গেছে, বাগান মালিকরা পাকা আম গাছ থেকে নামিয়ে বাড়িতে রাখে। এই আম প্রতিদিন সকালে ফড়িয়া ব্যবসায়ীরা বাড়ি বাড়ি ঘুরে ২০ কেজিতে ক্রয় করছে। এই আম আবার তারা উপজেলার বিভিন্ন আড়তে ২২ থেকে ২৫ টাকা কেজিতে বিক্রি করছে।

উপজেলার গোচর গ্রামের আম বাগান মালিক মাজদার রহমান সরদার বলেন, আমার আম বাগানে প্রতিটি গাছে ব্যাপক আম আছে। বাগানের আম বিক্রি করা হয়নি। ফলে প্রতিদিন সকালে পাকা আম গাছ থেকে নামিয়ে বিক্রি করছি। এভাবে দুই সপ্তাহ যাবৎ আম বিক্রি করছি। প্রতি কেজি লকনা আম ১৮-২০ টাকায় গাছ পাকা আম বিক্রি করেছি।

উপজেলার আড়ানী পৌর বাজারের মঞ্জুর রহমান নামের এক ব্যবসায়ী বলেন, গাছ পাকা আম কিনে ঢাকায় চালান করি। এই আম ১৮ টাকা থেকে ২০ টাকা কেজি দরে ক্রেতাদের কাছে থেকে ক্রয় করছি। গাছ পাকা আম বিক্রেতা রাশু মণ্ডল বলেন, আমি বাগান পাহারাদার। পড়ে যাওয়া পাকা আম ফরিয়াদের কাছে বিক্রি করি। যেগুলো কুড়িয়ে বিক্রি করছি। বাগান মালিকরা এগুলোর টাকা নেয় না। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শফিউল্লা সুলতান বলেন, গাছে আম পাকলে বোটা নরম হয়ে পড়ে যায়। এই আম বাজারে বিক্রি হতে দেখা যাচ্ছে।

ভিন্ন প্রসঙ্গ, মুহাম্মদ হাসান কবির বর্তমানে তুরস্কের সেলজুক বিশ্ববিদ্যালয়ে রাষ্ট্রবিজ্ঞান এবং জনপ্রশাসন বিষয়ে অধ্যয়রত মুহাম্মদ হাসান কবির লোহাগাড়া উপজেলার চুনতি নারিশ্চা গ্রামের আল্লামা ফৌজুল কবিরের পুত্র। লোহাগাড়া উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান এম. ইব্রাহিম কবির ও মরক্কোর আন্তর্জাতিক বিশ্ববিদ্যালয় আগাদীর’র আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিভাগের পরিচালক ও সহকারী অধ্যাপক এবং গ্লোবাল পীস প্লানেট (জিপিপি)-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মোহাম্মদ মহিউদ্দিন মাহীর ছোট ভাই।

মুহাম্মদ হাসান কবির বলেন, ‘আইসিওয়াইএফ রমজান ফটোগ্রাফি প্রয়োগিতায় ২০১৯’-এ প্রথম স্থান অর্জন করায় মহান আল্লাহর কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। এছাড়াও যারা দোয়া ও সমর্থন করেছেন তাদের প্রতিও কৃতজ্ঞতা জানাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *